মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব

১। নুরুল ইসলাম (পাপু মিয়া):

    ১৯৭০ সালের নিবাচনে গণ পরিষদের সদস্য। তিনিই সব প্রথম রৌমারী ইউনিয়নের জন প্রতিনিধি।

২। সিরাজুল হক :

কুড়িগ্রাম কলেজের তরুণ অধ্যাপক,(পরবর্তীতে রৌমারী ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ) রৌমারী ইউনিয়নের মাদারটিলা গ্রাম নিবাসী সিরাজুল হক ১৯৭৯ সালে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নিবার্চনে বিজয়ী হয়ে স্বাধীন বাংলাদেশে রৌমারী প্রথম সাংসদ হওয়ার গৌরব অর্জন করেন।

৩। গোলাম হোসেন :

১৯৯১ সালে ৫ম জাতীয় সংসদ নিবার্চনে রৌমারী ইউনিয়নের বারবান্দা গ্রাম নিবাসী মো: গোলাম হোসেন জাতীয় পার্টি থেকে সংসদ সদস্য হন। এর আগে তিনি ১৯৮৪ সালে রৌমারী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নিবার্চিত হন। গোলাম হোসেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হওয়ার আগে রৌমারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি ছিলেন মাটি ও মানুষের নেতা। তিনি খুব সহজেই গরীব দুখি মানুষদের সাথে মিশে যেতে পারতেন। তিনি ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান, সংসদ সদস্যা থাকা কালীন সময়ে রৌমারী ইউনিয়নের অনেক রাস্তা ঘাট, ব্রিজ, কালভার্ট, সাকো, বৃক্ষরোপন প্রভৃতি উন্নয়ন করেন।

৪। রোস্তম আলী দেওয়ানঃ

১৯৫২সালেরভাষাআন্দোলনেরলড়াকুসৈনিকওবীরমুক্তিযোদ্ধারোস্তমআলীদেওয়ান।রৌমারী ইউনিয়নেরচাক্তাবাড়ীগ্রামে৬নভেম্বর১৯৩৭সালেজন্মগ্রহনকরেন।কুড়িগ্রামেররৌমারীউপজেলায়একমাত্রভাষাসৈনিকছিলেনরোস্তমআলীদেওয়ান।

শুধু তাই নয় মহান মুক্তিযোদ্ধা ও এই প্রত্যন্ত অঞ্চলের আদর্শবান শিক্ষক ও খেলোয়ার হিসাবে খ্যাতি ছিল তাঁর। ২৫জুন ২০১১সালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

৫। জনাব মোঃ জাকির হোসেন, এমপি, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ঃ

জনাব মোঃ জাকির হোসেন ১৯৬৬ সালের ০২ জুলাই কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মৃত সামসুল হক এবং মাতা মৃত জুলেখা বানু। তাঁর স্ত্রী মোছাঃ সুরাইয়া সুলতানা।

মোঃ জাকির হোসেন রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের অধীনে থানাহাট এ.ইউ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাশ করেন। কুড়িগ্রামের রাজাহাট মীর ইসমাইল হোসেন ডিগ্রি মহাবিদ্যালয় থেকে এইচএসসি এবং লালমনিরহাট হাতিবান্ধা আলিমুদ্দিন ডিগ্রি কলেজ থেকে বিএ পাশ করেন। এরপর রংপুর আইন মহাবিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন।

ছাত্র জীবন থেকেই তিনি রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। তিনি ১৯৭৭ সালে ছাত্রলীগে যোগদান করেন। ১৯৮১ সালে কুড়িগ্রাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৮২ সালে কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৩-১৯৮৫ সালে রৌমারী উপজেলা যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা আহব্বায়ক ও সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৭-৯০ পর্যন্ত তিনি রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯০ সালে রৌমারী উপজেলা শাখা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে টানা ২০০৮ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ১৭ বছর দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৮-২০১৫ পর্যন্ত রৌমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের ১নং সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৫ সাল হতে বর্তমান পর্যন্ত রৌমারী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে অধিষ্ঠিত আছেন।

জনাব মোঃ জাকির হোসেন ২০০৮ সালে ২৮-কুড়িগ্রাম ৪ আসনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন  পেয়ে ৯ম জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি নবম জাতীয় সংসদে শ্রম, জনশক্তি ও কর্মসংস্থান এবং পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৮ সলের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৮-কুড়িগ্রাম ৪ আসনে বিপুল ভোটে (রৌমারী-চিলমারী-রাজিবপুর) ২য় বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। মোঃ জাকির হোসেন এম.পি ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

রাজনীতির শুরু থেকেই তিনি সমাজ সেবা ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত আছেন। তিনি নিজ এলাকায় বহু স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় সহায়তা করেছেন।

তিনি বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি ভাষায় দক্ষ। পারিবারিক জীবনে তিনি এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক। জনসেবা ও এলাকার সার্বিক উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাথে তিনি ওতপ্রোতভবে সম্পৃক্ত। বই পড়া ও খেলাধুলা তার শখ।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter