মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

রৌমারী মহিলা ডিগ্রী কলেজ

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

সংক্ষিপ্ত বর্ণনা, প্রতিষ্ঠাকাল ও ইতিহাস ঃ

 

রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলা সদরে অবস্থিত। প্রতিষ্ঠার বছর ১৯৯৫ইং। ১৯৯৪ইং সালের মাঝামাঝি সময় থেকে কলেজটি প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম শুরু হয়। উপজেলায় নারী শিক্ষার অগ্রগতি ও রৌমারীতে জেলা বাস্তবায়নের দাবীর অধিকতর গ্রহণযোগ্যতা অর্জনের লক্ষ্যে তৎকালে রৌমারী সদরে একটি মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। স্থানীয় শিক্ষানুরাগী মানুষ এবং চাকুরী গ্রহণে ইচ্ছুক ব্যক্তিবর্গের চাঁদায় তহবিল গঠন করা হয়। ১৯৯৫ইং সালে জমি ক্রয় এবং গৃহ নির্মাণ করে কলেজের কার্যক্রম পুরোদমে শুরু হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয় ২১ জানুয়ারি ১৯৯৬ইং সালে।  উদ্বোধন করেন জনাব মো: আবু ওয়াহীদ, জেলা প্রশাসক, কুড়িগাম। সঙ্গে ছিলেন জনাব মো: গোলাম হোসেন এম,পি (কুড়িগ্রাম-৪), জনাব মো: আবু হাফিজ, উপসচিব, সংস্থাপন মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা ও জনাব মো: কাজিউল ইসলাম, চেয়ারম্যান, কুড়িগ্রাম পৌরসভা, কুড়িগ্রাম। প্রথমে কলেজটির নাম ছিল ‘রৌমারী মহিলা মহাবিদ্যালয়’। পরে ‘মহাবিদ্যালয়’ শব্দটিকে ‘কলেজ’ শব্দে প্রতিস্থাপিত করা হয়। বর্তমানে কলেজটিকে ‘রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ’ সংক্ষেপে ‘রমডিক’ নামে ডাকা হয় এবং প্রতিবছর ২১ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়।

 

কলেজটি প্রতিষ্ঠায় উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের অবদান রয়েছে। মূল উদ্দোক্তার নাম- মো: মোমদেল হোসেন মন্ডল। তিনি পরবর্তীতে কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং অদ্যাবধি কর্মরত আছেন। রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠায় রৌমারীর সুযোগ্য সন্তানগণ যারা সেসময় সরকারী নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন তাদের ভূমিকা ছিল অপরিসীম। প্রণিধানযোগ্য নামগুলো হলো- জনাব মো: আবু বকর, অতিরিক্ত সচিব, আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা (বর্তমানে প্রয়াত), জনাব মো: আবু হাফিজ (পদবী পূর্বোক্ত। তিনি কলেজ উদ্বোধন এবং অনুমোদন প্রাপ্তির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন), জনাব মো: তসলিম উদ্দিন, সহযোগী অধ্যাপক, সরকারী বাংলা কলেজ, ঢাকা (কলেজ উদ্বোধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন), জনাব মো: আজিজুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক, তেজগাঁও কলেজ, ঢাকা (কলেজ উদ্বোধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন), জনাব মো: আবু ছাইদ, সহযোগী অধ্যাপক, সরকারী কারমাইকেল কলেজ, রংপুর, জনাব মো: আবুল হাশেম, সহকারী অধ্যাপক, কুড়িগ্রাম সরকারী কলেজ, কুড়িগ্রাম।

 

রৌমারীর সর্বস্তরের জনসাধারণের পাশাপাশি স্থানীয় যেসমস্ত শিক্ষানুরাগী এবং অগ্রসর চিন্তার অধিকারী ব্যক্তিবর্গ রৌমারী মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তারা হলেন- জনাব আলহাজ্জ মো: সাহাব উদ্দিন ফান্দু, জনাব মো: বদিউজ্জামান বাচ্চু, জনাব মো: নাসির উদ্দিন লাল, জনাব মো: জয়নাল আবেদীন ঠিকাদার। এরা সমন্বয়ক মোমদেল হোসেনসহ কলেজ প্রতিষ্ঠার মূল পরিকল্পনা এবং প্রাথমিক কর্মকান্ড সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে এদের পাশাপাশি স্বক্রিয় ভূমিকা পালন করেন জনাব মো: ইয়াকুব আলী মাষ্টার, জনাব মো: আব্দুল ওয়াদুদ মন্ডল, জনাব মো: আবদুল ওয়াহাব, জনাব মো: ছায়েদুর রহমান, জনাব মো: রুহুল আমীন চেয়ারম্যান, জনাব মো: আবুল কালাম আজাদ মন্ডল চেয়ারম্যান, জনাব মো: হাবিবুর রহমান চেয়ারম্যান, জনাব মো: আব্দুল বারী চেয়ারম্যান, জনাব মো: মজাহার আলী চেয়ারম্যান, জনাব মো: সিরাজুল হক (প্রধান শিক্ষক), জনাব মো: আব্দুস ছাত্তার এম,এস,সি (প্রধান শিক্ষক), জনাব মো: আবুল কাশেম (প্রধান শিক্ষক), জনাব মোহাম্মদ আলী (শিক্ষক), জনাব মো: আবুল হোসেন (শিক্ষক), জনাব মো: মোজাফফর হোসেন (শিক্ষক)। রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ যেসমস্ত ব্যক্তিবর্গের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় গড়ে উঠেছে অত্র প্রতিষ্ঠান তাদেরকে চিরদিন শ্রোদ্ধাভরে স্মরণ করবে।

১৯৯৫

সংক্ষিপ্ত বর্ণনা, প্রতিষ্ঠাকাল ও ইতিহাস ঃ

 

রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলা সদরে অবস্থিত। প্রতিষ্ঠার বছর ১৯৯৫ইং। ১৯৯৪ইং সালের মাঝামাঝি সময় থেকে কলেজটি প্রতিষ্ঠার কার্যক্রম শুরু হয়। উপজেলায় নারী শিক্ষার অগ্রগতি ও রৌমারীতে জেলা বাস্তবায়নের দাবীর অধিকতর গ্রহণযোগ্যতা অর্জনের লক্ষ্যে তৎকালে রৌমারী সদরে একটি মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। স্থানীয় শিক্ষানুরাগী মানুষ এবং চাকুরী গ্রহণে ইচ্ছুক ব্যক্তিবর্গের চাঁদায় তহবিল গঠন করা হয়। ১৯৯৫ইং সালে জমি ক্রয় এবং গৃহ নির্মাণ করে কলেজের কার্যক্রম পুরোদমে শুরু হয়। আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয় ২১ জানুয়ারি ১৯৯৬ইং সালে।  উদ্বোধন করেন জনাব মো: আবু ওয়াহীদ, জেলা প্রশাসক, কুড়িগাম। সঙ্গে ছিলেন জনাব মো: গোলাম হোসেন এম,পি (কুড়িগ্রাম-৪), জনাব মো: আবু হাফিজ, উপসচিব, সংস্থাপন মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা ও জনাব মো: কাজিউল ইসলাম, চেয়ারম্যান, কুড়িগ্রাম পৌরসভা, কুড়িগ্রাম। প্রথমে কলেজটির নাম ছিল ‘রৌমারী মহিলা মহাবিদ্যালয়’। পরে ‘মহাবিদ্যালয়’ শব্দটিকে ‘কলেজ’ শব্দে প্রতিস্থাপিত করা হয়। বর্তমানে কলেজটিকে ‘রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ’ সংক্ষেপে ‘রমডিক’ নামে ডাকা হয় এবং প্রতিবছর ২১ জানুয়ারি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়।

 

কলেজটি প্রতিষ্ঠায় উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের অবদান রয়েছে। মূল উদ্দোক্তার নাম- মো: মোমদেল হোসেন মন্ডল। তিনি পরবর্তীতে কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং অদ্যাবধি কর্মরত আছেন। রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠায় রৌমারীর সুযোগ্য সন্তানগণ যারা সেসময় সরকারী নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন তাদের ভূমিকা ছিল অপরিসীম। প্রণিধানযোগ্য নামগুলো হলো- জনাব মো: আবু বকর, অতিরিক্ত সচিব, আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা (বর্তমানে প্রয়াত), জনাব মো: আবু হাফিজ (পদবী পূর্বোক্ত। তিনি কলেজ উদ্বোধন এবং অনুমোদন প্রাপ্তির ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন), জনাব মো: তসলিম উদ্দিন, সহযোগী অধ্যাপক, সরকারী বাংলা কলেজ, ঢাকা (কলেজ উদ্বোধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন), জনাব মো: আজিজুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক, তেজগাঁও কলেজ, ঢাকা (কলেজ উদ্বোধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন), জনাব মো: আবু ছাইদ, সহযোগী অধ্যাপক, সরকারী কারমাইকেল কলেজ, রংপুর, জনাব মো: আবুল হাশেম, সহকারী অধ্যাপক, কুড়িগ্রাম সরকারী কলেজ, কুড়িগ্রাম।

 

রৌমারীর সর্বস্তরের জনসাধারণের পাশাপাশি স্থানীয় যেসমস্ত শিক্ষানুরাগী এবং অগ্রসর চিন্তার অধিকারী ব্যক্তিবর্গ রৌমারী মহিলা কলেজ প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন তারা হলেন- জনাব আলহাজ্জ মো: সাহাব উদ্দিন ফান্দু, জনাব মো: বদিউজ্জামান বাচ্চু, জনাব মো: নাসির উদ্দিন লাল, জনাব মো: জয়নাল আবেদীন ঠিকাদার। এরা সমন্বয়ক মোমদেল হোসেনসহ কলেজ প্রতিষ্ঠার মূল পরিকল্পনা এবং প্রাথমিক কর্মকান্ড সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে এদের পাশাপাশি স্বক্রিয় ভূমিকা পালন করেন জনাব মো: ইয়াকুব আলী মাষ্টার, জনাব মো: আব্দুল ওয়াদুদ মন্ডল, জনাব মো: আবদুল ওয়াহাব, জনাব মো: ছায়েদুর রহমান, জনাব মো: রুহুল আমীন চেয়ারম্যান, জনাব মো: আবুল কালাম আজাদ মন্ডল চেয়ারম্যান, জনাব মো: হাবিবুর রহমান চেয়ারম্যান, জনাব মো: আব্দুল বারী চেয়ারম্যান, জনাব মো: মজাহার আলী চেয়ারম্যান, জনাব মো: সিরাজুল হক (প্রধান শিক্ষক), জনাব মো: আব্দুস ছাত্তার এম,এস,সি (প্রধান শিক্ষক), জনাব মো: আবুল কাশেম (প্রধান শিক্ষক), জনাব মোহাম্মদ আলী (শিক্ষক), জনাব মো: আবুল হোসেন (শিক্ষক), জনাব মো: মোজাফফর হোসেন (শিক্ষক)। রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ যেসমস্ত ব্যক্তিবর্গের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় গড়ে উঠেছে অত্র প্রতিষ্ঠান তাদেরকে চিরদিন শ্রোদ্ধাভরে স্মরণ করবে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মো: মোমদেল হোসেন ০১৭১৩২০০১৯৩ principal@rwdc.edu.bd

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

শ্রেণি ভিত্তিক ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ও পাসের হার ঃ একাদশ শ্রেণি- ১২০ জন, দ্বাদশ শ্রেণি- ১৩৪ জন, বিএ ও বিএসএস-১৩৫ জন, পাসের হার- ৯৫%।

৯৫%

বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য ঃ প্রক্রিয়াধীন।

এইচএসসি ও ডিগ্রি পরীক্ষার ফলাফল (বিগত ৫ বছরের) ঃ

এইচএসসি- ২০১২: পরীক্ষার্থী- ১৪৪, উত্তীর্ণ-৮১, পাসের হার- ৫৬.২৫%

২০১১: পরীক্ষার্থী-১০৬, উত্তীর্ণ-৪৭, পাসের হার- ৪৪.৩৩%

২০১০: পরীক্ষার্থী- ৯৬, উত্তীর্ণ-৩৬, পাসের হার- ৩৭.৫%

২০০৯: পরীক্ষার্থী- ৬৯, উত্তীর্ণ-৪৫, পাসের হার- ৬৫.২১%

২০০৮: পরীক্ষার্থী- ৫৩, উত্তীর্ণ-২৯, পাসের হার- ৫৪.৭১%

ডিগ্রি-        শেষ বর্ষের পরীক্ষা চলমান।

শেণি ভিত্তিক উপবৃত্তি প্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ঃ  একাদশ শ্রেণি- ৪৮ জন, দ্বাদশ শ্রেণি- ৫৩ জন, বিএ ও বিএসএস- ৮৭ জন।

অর্জন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাঃ 

 

প্রতিষ্ঠার পর থেকে অদ্যাবধি কলেজের অবকাঠামোগত অর্জন খুব বেশি নহে। একটি দ্বিতল ভবন, একটি বারান্দা ছাড়া টিনের ঘর ও একটি একচালা ঘর নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি চলছে। তবে পড়ালেখার মান মোটামোটি ভাল। আর্থিক ব্যবস্থাপনাও ভাল। কলেজটি আদর্শিক লড়াইয়ে লিপ্ত রয়েছে এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। অর্জন এটুকুই। তবে নিকট ভবিষ্যতে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি সাধনের পরিকল্পনা রয়েছে। এগুলো হচ্ছে- সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা, আরো একটি একাডেমিক ভবন নির্মাণ করা, কম্পিউটার ল্যাব সংযোজন করা, মাটি দ্বারা মাঠ ভরাটকরণ, দুষ্প্রাপ্য শতবর্ষী বৃক্ষ রোপন করা, শহীদ মিনার সংস্কারকরণ এবং ক্যাম্পাসে বেগম রোকেয়ার স্ট্যাচু স্থাপন করা।

অর্জন ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাঃ 

 

প্রতিষ্ঠার পর থেকে অদ্যাবধি কলেজের অবকাঠামোগত অর্জন খুব বেশি নহে। একটি দ্বিতল ভবন, একটি বারান্দা ছাড়া টিনের ঘর ও একটি একচালা ঘর নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি চলছে। তবে পড়ালেখার মান মোটামোটি ভাল। আর্থিক ব্যবস্থাপনাও ভাল। কলেজটি আদর্শিক লড়াইয়ে লিপ্ত রয়েছে এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। অর্জন এটুকুই। তবে নিকট ভবিষ্যতে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি সাধনের পরিকল্পনা রয়েছে। এগুলো হচ্ছে- সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা, আরো একটি একাডেমিক ভবন নির্মাণ করা, কম্পিউটার ল্যাব সংযোজন করা, মাটি দ্বারা মাঠ ভরাটকরণ, দুষ্প্রাপ্য শতবর্ষী বৃক্ষ রোপন করা, শহীদ মিনার সংস্কারকরণ এবং ক্যাম্পাসে বেগম রোকেয়ার স্ট্যাচু স্থাপন করা।

যোগাযোগের ঠিকানা (মোবাইল নমবরসহ) ঃ    অধ্যক্ষ,

রৌমারী মহিলা ডিগ্রি কলেজ,

ডাকঘর ও উপজেলা- রৌমারী, জেলা- কুড়িগ্রাম।

মোবাইল নং- ০১৭১৩২০০১৯৩।

মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীর তালিকা (ফলাফলের উপর ভিত্তি করে) ঃ  ০২ জন A+